Evolution Palaeontology and Zoogeography suggestion & Question Bank । অনার্স ৩য়বর্ষ প্রাণিবিজ্ঞান সাজেশন

Evolution Palaeontology and Zoogeography suggestion & Question Bank । অনার্স ৩য়বর্ষ প্রাণিবিজ্ঞান সাজেশন & Question Bank । বিবর্তন প্ল্যানটোলজি ও প্রাণিভূগোল সাজেশন ও প্রশ্নব্যাংক । অনার্স ৩য়বর্ষ প্রাণিবিজ্ঞান সাজেশন

তোমার নিশ্চয় জানো , জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশ্নের যে প্যাটার্ণ সেখানে মূলত বিগত বছরের প্রশ্নগুলো অনুসরন করলেই ৯০% কমন আসে।


প্রাণিবিদ্যা বিভাগ 
বিষয় কোড : 233101 
বিষয় : Evolution, Palaeontology and Zoogeography 

১। যেকোনো দশটি প্রশ্নের উত্তর দাও 

ক-বিভাগ 

[বিশেষ দ্রষ্টব্য : প্রতিটি বিভাগের প্রশ্নের উত্তর ধারাবাহিকভাবে লিখতে হবে।] 

ক) ম্যাক্রোবিবর্তন কী? [What is macro evolution?] 
উত্তর : মাইক্রো বিবর্তন যখন উপ-প্রজাতি স্তর অতিক্রম করে প্রজাতি পর্যায়ে পৌঁছায় অর্থাৎ যখন প্রজাতির উৎপত্তি ঘটে তখন তাকে ম্যাক্রো বিবর্তন বলে । 

আরো পড়ুনঃ

খ) সমসংস্থ অঙ্গ কী? [What is homologous organ?] 
উত্তর : যে সকল অঙ্গের উৎপত্তি ও মৌলিক গঠনের ভিত্তি এক কিন্তু কাজ ভিন্ন তাকে সমসংস্থ অঙ্গ বলে। 

গ) জেনেটিক ড্রিফট বলতে কী বুঝ? [What do you mean by genetic drift?] 
উত্তর : স্বাভাবিক নিয়মের বাইরে শুধুমাত্র দৈব, দুর্ঘটনার জন্য জিন ফ্রিকোয়েন্সির যে পরিবর্তন হয়, তাকেই জেনেটিক ড্রিফট বলে । 

ঘ) জাতিজনি বলতে কী বুঝ? [What do you mean by ontogeny?] 
উত্তরঃ জাতিজনি বলতে এক জাতীয় প্রাণীর বিবর্তনকালীন পরিবর্তনের অনুক্রমগুলোকে বুঝায় 

ঙ) প্রোটোবায়োন্ট কী? [What is protobiont?] 
জীবন বিকাশের রাসায়নিক ও জৈবিক বিবর্তনের সন্ধিক্ষণে সৃষ্ট অন্তবর্তী দশাকে প্রোটোবায়োন্ট বলে।

চ) কপ্রোলিথ কী? [What is coprolith?] 
উত্তর : আদিম প্রাণীর মল শিলায় সংরক্ষিত অবস্থায় দেখা গেছে, এদের কপ্রোলিথ বা মলাশ্ম বলে। 

(ছ) স্ট্যাগোডোন কী? [What is stegodon?] 
উত্তর :  হাতি বিবর্তনের সফল লাইন হলো Stegodon, যা থেকে আধুনিক হাতির আবির্ভাব ঘটেছে। 

জ) ওয়ালেসিয়া কী? [What is wallacea?] 
উত্তর : ওয়ালেসের রেখা এবং ওয়েবারের রেখার মধ্যবর্তী অঞ্চলে অবস্থিত বিভিন্ন দ্বীপ মিলে যে স্বতন্ত্র এলাকা গঠিত হয়েছে তার নাম ওয়ালেসিয়া। 

ঝ) New world বলতে কী বুঝ? (What do you mean by New world?]
উত্তর : নিওআর্কটিক ও নিওট্রপিক্যাল অঞ্চলকে একত্রে New World বলে। 

ঞ) অন্তরণ কী? [What is Isolation?] 
উত্তর : যখন কোনো একটি জীবগোষ্ঠী দুই বা ততোধিক প্রজাতিক শ্রেণিতে বিভক্ত হয়ে কতগুলো প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির মাধ্যমে আন্তঃপ্রজাতিক সংকরায়নের পথ রুদ্ধ করে দেয় তখন তাকে অন্তরণ বা Isolation বলে ।

ট) প্লিস্টোসিন হিমবাহ কী? [What is pleistocene glaciation?j 
উত্তর : Plistocene যুগে উত্তর গোলার্ধ থেকে বিশাল আকৃতির হিমবাহ বিষুবীয় অঞ্চলে, অতঃপর দক্ষিণে বিস্তৃত হওয়ার ঘটনাকে প্লিস্টোসিন হিমবাহ (Plistocene Gluciation) বলে। 

ঠ) এক্সোটিক প্রাণী কাকে বলে? [Define Exotic Animal.] 
উত্তর : কোনো নির্দিষ্ট অঞ্চলে বসবাসকারী প্রাণিগোষ্ঠী ব্যতীত অন্য অঞ্চল থেকে আগত প্রাণীদেরকে এক্সোটিক প্রাণী বলা হয়।

Evolution Palaeontology and Zoogeography suggestion & Question Bank । অনার্স ৩য়বর্ষ প্রাণিবিজ্ঞান সাজেশন & Question Bank । বিবর্তন প্ল্যানটোলজি ও প্রাণিভূগোল সাজেশন ও প্রশ্নব্যাংক । অনার্স ৩য়বর্ষ প্রাণিবিজ্ঞান সাজেশন

খ-বিভাগ 

যেকোনো ৫টি প্রশ্নের উত্তর দাও

২। ল্যামার্কবাদ ও ডারউইনবাদের মধ্যে পার্থক্য কর। [Differentiate between Lamarkism and Darwinism.]

৩। প্রজাতি সৃষ্টিতে অন্তরণের ভূমিকা ব্যাখ্যা কর। [Explain the role of isolation in speciation.] 

৪। বিবর্তনের ধারায় হাতির উন্নত বৈশিষ্ট্যগুলো লিখ। [Write down the developed characteristics in Elephant Evolution.]

৫। সমসংস্থ ও সমবৃত্তীয় অঙ্গের মধ্যে পার্থক্য লিখ। [Write down the differences between homologous and analogous organ.] 

৬। Jurassic Period-এর বিশেষত্ব উল্লেখ কর। [Mention the specialities of Jurassic Period.] 

উত্তর : মেসোজোয়িক মহাযুগের অন্যতম অধিযুগ হলো জুরাসিক। ফ্রান্স ও সুইজারল্যান্ডের মধ্যবর্তী জুরা পর্বতের নামানুসারে এ অধিযুগের নামকরণ করা হয়। নিচে এ অধিযুগের বিশেষত্বগুলো উল্লেখ করা হলো-

১. এ যুগে জলবায়ু ছিল শান্ত প্রকৃতির। 

২. স্থানীয় শুষ্ক অবস্থা অপরিবর্তিত ছিল। 

৩. জুরাসিক অধিযুগ ছিল ট্রায়াসিক যুগের ধারাবাহিকতার ফসল। 

8. এ অধিযুগে প্রবালের প্রাচুর্যতা বেশি ছিল এবং এসব প্রবাল আধুনিক প্রবালের ন্যায় ছিল 

৫. জুরাসিক অধিযুগের মোলাস্কার মধ্যে গ্যাস্ট্রোপোড ও পেলেসাইপোডসদের সর্বত্র অধিকতর প্রাচুর্য ছিল। 

৬. এ অধিযুগে ক্রিনয়েড ও সী-আর্টিনরা ছিল একাইনোডার্মদের প্রতিনিধি। 

৭।বিরাট আকৃতি বিশিষ্ট বিভিন্ন ধরনের সরীসৃপরা সফলভাবে এ অধিযুগে অভিযোজিত হয়েছিল। 

৮. এ অধিযুগে সরীসৃপদের আধিপত্য ছিল। 

৯. পক্ষীকুলের উপস্থিতি ছিল জুরাসিক অধিযুগের গুরুত্বপূর্ণ বিশেষত্ব। 

১০. জুরাসিক অধিযুগে প্রাপ্ত Archaeopteryx-এর কঙ্কাল থেকে পাখিদের পূর্বপুরুষ সম্পর্কে জ্ঞান লাভ করা যায়। 

৭। বিভিন্ন প্রকার জীবাশ্মের বিবরণ দাও। [Describe the various types of fossils.] 

৮। ‘ফুসফুস মাছ’-এর ভৌগোলিক বিস্তৃতি লিখ। [Write down the geological distribution of ‘Lung fish’.]

৯। নিওট্রপিক্যাল অঞ্চলকে পাখিদের মহাদেশ বলা হয় কেন? [Why is Neotropical region called the continent of birds?]

যেকোনো ৫টি প্রশ্নের উত্তর দাও

১০। প্রজাতি সৃষ্টিতে জিন মিউটেশন এবং ক্রোমোসোমাল অ্যাবারেশনের ভূমিকা আলোচনা কর। [Discuss about the role of gene mutation and chromosomal abberation in speciation.)

গ-বিভাগ 

১১। বিবর্তন সম্পর্কিত আধুনিক সংশ্লেষ মতবাদ আলোচনা কর। [Discuss the modern synthesis about evolution.] 

১২। বিবর্তনের স্বপক্ষে তুলনামূলক শারীরস্থানিক এবং জীবাশ্মঘটিত প্রমাণ বর্ণনা কর। [Describe the comparative anatomical and palaeontological evidences in favour of evolution.]

১৩। আধুনিক মানুষের প্রত্নতাত্ত্বিক ইতিহাস বর্ণনা কর। [Describe the evolution of modern man.]

উত্তর : সম্ভবত বিবর্তনের ক্ষেত্রে মানুষের বিবর্তন ছাড়া অন্য কোনো ব্যাপার এতটা নিবিড়ভাবে অধ্যয়ন করা হয়নি। তবুও এটি এমন একটি বিষয় যার সম্বন্ধে প্রচুর বিতর্ক রয়েছে এবং এ ব্যাপারে অনেক কিছু জানার আছে। নিচে এ সম্পর্কে আলোচনা করা হলো –

মানুষের উদ্ভব (Origin of man) : গ্রেগরীর মতে, মানুষ যে বংশ থেকে উৎপন্ন হয়েছে তা সম্ভবত বড় মস্তিষ্কবিশিষ্ট অ্যানথ্রোপয়েড এপ (নরবানর) এবং শিম্পাঞ্জি-গরিলা দলের খুব কাছাকাছি সম্পর্কিত ছিল। এ ধারণা অন্তঃঅঙ্গসংস্থানের আকৃতির উপর ভিত্তি করে প্রতিষ্ঠিত। 

অনেকেই মনে করেন যে, বানর থেকে বা বনমানুষ থেকে মানুষের উৎপত্তি হয়েছে। ধারণাটি আসলে ঠিক নয়। অন্যান্য স্তন্যপায়ী প্রাণীর মতো মানুষের ক্রমবিকাশও যথেষ্ট জটিল এবং শাখা-প্রশাখাযুক্ত। বিজ্ঞানীদের মতে, বানর বা বনমানুষ থেকে নয় বরং যে কাণ্ড (বংশ) থেকে বানর এবং বনমানুষ (এপ) এর উদ্ভব হয়েছে, তা থেকেই বর্তমান মানুষের পূর্বপুরুষের উদ্ভব হয়েছে। অন্যভাবে বলা যায় যে, অ্যানথ্রোপয়েড এপ এবং মানুষের পুর্বপুরুষ একই ছিল। 

প্রাইমেটদের পূর্বপুরুষ ছিল এক ধরনের বৃক্ষবাসী স্তন্যপায়ী, যাদের ট্রি-শ্রু (tree shrew) বলা হয়। এরা পতঙ্গভূক এবং এদের জীবাশ্ম ইয়োসিন ও প্যালিওসিনে পাওয়া গেছে। এ থেকে অনুমান করা যায় যে, এরা পৃথিবীতে প্রায় ৭ কোটি বছর আগে এসেছিল। এ প্রাইমেটদের পূর্বপুরুষ থেকে বর্তমানকালের লেমুর, বানর, অ্যানথ্রোপয়েড এপ এবং মানুষের পূর্বপুরুষের উদ্ভব হয়। ক্রমবিকাশের ধারায় অ্যানথ্রোপয়েড এপস (গরিলা, শিম্পাঞ্জি, ওরাংওটাং) মানুষের নিকট আত্মীয়। 

IV.  মানুষের বিবর্তনগত পরিবর্তন (Evolutionary changes of inan) : মানুষের যে বিবর্তনগত পরিবর্তনগুলো প্রত্যক্ষ করা হয়েছে, তা হলো

i. পুরোপুরি খাড়া হয়ে চলতে পারা। 

ii. হাত দুটি পায়ের চেয়ে খাটো হওয়া। 

iii. হাতের বুড়ো আঙ্গুল অন্যান্য আঙ্গুলের উল্টো দিকে হওয়ায় আকড়ে ধরার ক্ষমতা। পায়ের বুড়ো আঙ্গুল অন্যান্যদের সাথে লেগে যাওয়া, ফলে দেহের ভর পায়ের উপর দিয়ে খাড়াভাবে দাঁড়াতে পারা। 

iV.চোয়াল খাটো হয়ে যাওয়া এবং দাঁতের আকারে পরিবর্তন। 

v চোয়ালের ক্ষমতা কমে যাওয়া। 

 ১৪) Era, Period, Epoch যাত্রাকাল এবং প্রাধান্য বিস্তারকারী উল্লেখপূর্বক ভূ-তাত্ত্বিক সময়পঞ্জিকে ছক আকারে উপস্থাপন কর।

১৫) জীবাশ্ম সৃষ্টির পদ্ধতি আলোচনা কর।

১৬) ট্রান্সজিশনাল ফনা কী? ওরিয়েন্টেশন , ও অস্ট্রেলিয়ান অঞ্চলের মধ্যবর্তী ট্রান্সজিশনাল ফনার উপর আলোচনা কর। পরীক্ষা-২০১৭

এই Evolution Palaeontology and Zoogeography suggestion & Question Bank । অনার্স ৩য়বর্ষ প্রাণিবিজ্ঞান সাজেশন & Question Bank । বিবর্তন প্ল্যানটোলজি ও প্রাণিভূগোল সাজেশন ও প্রশ্নব্যাংক । অনার্স ৩য়বর্ষ প্রাণিবিজ্ঞান সাজেশন ছাড়াও আরো জানুন

Comments

No comments yet. Why don’t you start the discussion?

Leave a Reply