সিরাজউদ্দৌলা নাটকের জ্ঞানমূলক প্রশ্ন ও উত্তর (এইচএসসি বাংলা ১মপত্র)

সিরাজউদ্দৌলা নাটকের জ্ঞানমূলক প্রশ্ন ও উত্তর (এইচএসসি বাংলা ১মপত্র): শিক্ষার্থীরা তোমাদের বাংলা সহপাঠ সিরাজউদ্দৌলা নাটক এর সর্বশেষ বোর্ড প্রশ্ন উত্তরসহ এখানে দিয়েছি। আশাকরি তোমরা এখান থেকে প্রস্তুতি ও পরীক্ষার ধারণা নিতে পারবে।

সিরাজউদ্দৌলা নাটকের জ্ঞানমূলক প্রশ্ন ও উত্তর (এইচএসসি বাংলা ১মপত্র)

প্রশ্ন ১। রবার্ট ক্লাইভ কাকে সেরা বিশ্বাসঘাতক বলেছেন?
উত্তর : রবার্ট ক্লাইভ উমিচাঁদকে সেরা বিশ্বাসঘাতক বলেছেন।

Read More:

প্রশ্ন ২। সিরাজউদ্দৌলার হত্যাকারীর নাম কী?
উত্তর : সিরাজউদ্দৌলার হত্যাকারীর নাম মোহাম্মদি বেগ।

প্রশ্ন ৩। উমিচাঁদ কোথা থেকে বাংলাদেশে এসেছে?
উত্তর : উমিচাঁদ লাহোর থেকে বাংলাদেশে এসেছে।

প্রশ্ন ৪। “চারদিকে শুধু অবিশ্বাস আর ষড়যন্ত্র ।”— উক্তিটি কার?
উত্তর : “চারিদিকে শুধু অবিশ্বাস আর ষড়যন্ত্র”- উক্তিটি রায়দুর্লভের।

প্রশ্ন ৫। সিরাজের কোন সেনাপতি যুদ্ধে প্রথম মৃত্যুবরণ করে?
উত্তর : সিরাজের সেনাপতি মিরমর্দান যুদ্ধে প্রথম মৃত্যুবরণ করেন।

প্রশ্ন ৬। ঐতিহাসিক পলাশি কোন নদীর তীরে অবস্থিত?
উত্তর : ঐতিহাসিক পলাশি গঙ্গা নদীর তীরে অবস্থিত

প্রশ্ন ৭। ‘সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকে শেষ সংলাপ কার?
উত্তর : ‘সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকে শেষ সংলাপ মোহাম্মদি বেগের।

প্রশ্ন ৮। নবাবের গোলন্দাজ বাহিনী কোন খাল পেরিয়ে ছুটে আসছে? [
উত্তর : নবাবের গোলন্দাজ বাহিনি শিয়ালদহের পেরিয়ে ছুটে আসছে।

প্রশ্ন ৯। নবাব সিরাজউদ্দৌলা কোথায় বন্দি হন?
উত্তর : নবাব সিরাজউদ্দৌলা ভগবানগোলায় বন্দি হন।

প্রশ্ন ১০। “আমাদের কারও অদৃষ্ট মেঘমুক্ত থাকবে না শেঠজি।”- উক্তিটি কার?
উত্তর : “আমাদের কারও অদৃষ্ট মেঘমুক্ত থাকবে না শেঠজি।”-উক্তিটি মিরজাফরের।

সিরাজউদ্দৌলা নাটকের জ্ঞানমূলক প্রশ্ন ও উত্তর (এইচএসসি বাংলা ১মপত্র)

প্রশ্ন ১১। “সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকের তৃতীয় অঙ্কের দৃশ্য সংখ্যা কত?
উত্তর : ‘সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকের তৃতীয় অঙ্কে দৃশ্য সংখ্যা ৪টি।

প্রশ্ন ১২। নবাব সিরাজউদ্দৌলার স্ত্রীর নাম কী?
উত্তর : নবাব সিরাজউদ্দৌলার স্ত্রীর নাম লুৎফুন্নেসা।

প্রশ্ন ১৩। “ভিক্টরি অর ডেথ, ভিক্টরি অর ডেথ’— উক্তিটি কাদের প্রতি করা হয়েছিল?
উত্তর : ‘ভিক্টরি আর ডেথ, ভিক্টরি অর ডেথ’— উক্তিটি ব্রিটিশ সৈনিকদের প্রতি করা হয়েছিল ।

প্রশ্ন ১৪। “মিথ্যা অপবাদ দিচ্ছেন সেনাপতি’—এখানে সেনাপতির নাম কী?
উত্তর : ‘মিথ্যা অপবাদ দিচ্ছেন সেনাপতি’— এখানে সেনাপতি নাম মোহনলাল ।

প্রশ্ন ১৫। কত সালে আলিনগরের সন্ধি চুক্তি সম্পাদিত হয়?
উত্তর : ১৭৫৭ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি আলিনগরের চুক্তি সম্পাদিত হয়।

প্রশ্ন ১৬। মিরজাফরের গুপ্তচর কে?
উত্তর : মিরজাফরের গুপ্তচর হলো- উমর বেগ।

প্রশ্ন ১৭। রাইসুল জুহালার প্রকৃত নাম কী?
উত্তর : রাইসুল জুহালার প্রকৃত নাম নারান সিং।

প্রশ্ন ১৮। সিরাজউদ্দৌলার মায়ের নাম কী?
উত্তর : সিরাজউদ্দৌলার মায়ের নাম আমিনা বেগম।

প্রশ্ন ১৯। কার নির্দেশে সিরাজউদ্দৌলাকে হত্যা করা হয়? [
উত্তর : ক্লাইভের ষড়যন্ত্রে বিশ্বাসঘাতক মিরজাফরের পুত্র মিরনের নির্দেশে নবাব সিরাজউদ্দৌলাকে হত্যা করা হয়।

প্রশ্ন ২০। ইংরেজরা পরাজিত হয়ে কোন জাহাজে আশ্রয় নেয়?
উত্তর : ইংরেজরা পরাজিত হয়ে ফোর্ট উইলিয়াম জাহাজে আশ্রয় নেয়।

সিরাজউদ্দৌলা নাটকের জ্ঞানমূলক প্রশ্ন ও উত্তর (এইচএসসি বাংলা ১মপত্র)

প্রশ্ন ২১। ‘সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকের প্রথম সংলাপ কার?
উত্তর : ‘সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকের প্রথম সংলাপ ক্লেটনের।

প্রশ্ন ২২। সিরাজউদ্দৌলা কাকে কলকাতার দেওয়ান নিযুক্ত করেন?
উত্তর : সিরাজউদ্দৌলা মানিকচাঁদকে কলকাতার দেওয়ান নিযুক্ত করেন।

প্রশ্ন ২৩। ‘ক্লাইভের গাধা’ কে?
উত্তর : ‘ক্লাইভের গাধা’ বলা হতো মিরজাফরকে।

প্রশ্ন ২৪। “সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকের শেষ সংলাপ কার?
উত্তর : মোহাম্মদি বেগের।

প্রশ্ন ২৫। ‘সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকে কতটি অঙ্ক রয়েছে?
উত্তর : “সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকে ৪টি অঙ্ক রয়েছে

প্রশ্ন ২৬। মুক্তিযুদ্ধের সময় কলকাতা থেকে সিকান্দার আবু জাফর কোন পত্রিকা সম্পাদনা করেন?
উত্তর : মুক্তিযুদ্ধের সময় কলকাতা থেকে সিকান্দার আবু জাফর ‘সাপ্তাহিক অভিযান’ পত্রিকা সম্পাদনা করেন।

প্রশ্ন ২৭। নবাব আলিবর্দি খাঁর প্রিয়পাত্র কে ছিলেন?
উত্তর : নবাব আলিবর্দি খাঁর প্রিয়পাত্র ছিলেন নবাব সিরাজউদ্দৌলা।

প্রশ্ন ২৮। মোহনলালের তথ্যমতে, নবাব সিরাজউদ্দৌলার পক্ষে সৈন্য সংখ্যা কত?
উত্তর : মোহনলালের তথ্যমতে, নবাব সিরাজউদ্দৌলার পক্ষে সৈন্য সংখ্যা ৫০ হাজারের বেশি।

প্রশ্ন ২৯। নবাব সিরাজউদ্দৌলার পূর্ণ নাম কী?
উত্তর : নবাব সিরাজউদ্দৌলার পূর্ণ নাম ‘সিরাজউদ্দৌলা শাহকুলি খাঁ মির্জা মুহম্মদ হায়বতঙ্গ বাহাদুর’।

প্রশ্ন ৩০। “আত্মসমর্পণ করাই এখন যুক্তিসংগত”- উক্তিটি কার?
উত্তর : “আত্মসমর্পণ করাই এখন যুক্তিসংগত”- উক্তিটি হলওয়েলের ।

সিরাজউদ্দৌলা নাটকের জ্ঞানমূলক প্রশ্ন ও উত্তর (এইচএসসি বাংলা ১মপত্র)

প্রশ্ন ৩১। “সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকের রচয়িতা কে?
উত্তর : ‘সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকের রচয়িতা হলেন সিকান্দার আবু জাফর।

প্রশ্ন ৩২। পলাশির যুদ্ধ কত সালে সংঘটিত হয়?
উত্তর : পলাশীর যুদ্ধ ১৭৫৭ সালে সংঘটিত হয়।

প্রশ্ন ৩৩। মিরজাফর কে?
উত্তর : মিরজাফর ছিলেন নবাব আলিবর্দি খাঁর সেনাপতি ও বকশি এবং নবাব সিরাজউদ্দৌলার সিপাহসালার।

প্রশ্ন ৩৪। ‘সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকের ১ম অঙ্কের ২য় দৃশ্য কত তারিখের ঘটনা?
উত্তর : ‘সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকের প্রথম অঙ্কের দ্বিতীয় দৃশ্য ১৭৫৬ সালের তেসরা জুলাই তারিখের ঘটনা।

প্রশ্ন ৩৫। “সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকে মোট কতটি দৃশ?
উত্তর : ‘সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকে মোট ১২টি দৃশ্য ।

প্রশ্ন ৩৬। “সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকে “দি ব্রেভেস্ট সোলজার ইজ ডেড”— কার সম্পর্কে এ উক্তিটি করা হয়েছে?
উত্তর : ‘সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকে “দি ব্রেভেস্ট সোলজার ইজ ডেড”– উক্তিটি সেনাপতি মিরমর্দান সম্পর্কে করা হয়েছে।

প্রশ্ন ৩৭। ‘Victory or death’- কার সংলাপ?
উত্তর : ‘Victory or death’- সংলাপটি ক্লেটনের।

প্রশ্ন ৩৮ । নবাব আলিবর্দি খাঁ-এর প্রকৃত নাম কী?
উত্তর : নবাব আলিবর্দি খা-এর প্রকৃত নাম মির্জা মুহম্মদ আলি ।

প্রশ্ন ৩৯। সিরাজউদ্দৌলাকে নতুন নবাবের দণ্ডাজ্ঞা শোনাতে এসেছিল কে?
উত্তর : মিরজাফরের পুত্র মিরন সিরাজউদ্দৌলাকে নতুন নবাবের দণ্ডাজ্ঞা শোনাতে এসেছিল।

প্রশ্ন ৪০। কিলপ্যাট্রিক কোন স্থান থেকে কলকাতায় ফিরে এসেছেন?
উত্তর : কিলপ্যাট্রিক মাদ্রাজ থেকে কলকাতায় ফিরে এসেছেন।

সিরাজউদ্দৌলা নাটকের জ্ঞানমূলক প্রশ্ন ও উত্তর (এইচএসসি বাংলা ১মপত্র)

প্রশ্ন ৪১। নবাব সিরাজউদ্দৌলার নবাবি নাম কী?
উত্তর : সিরাজউদ্দৌলার নবাবি নাম ‘নবাব মনসুর-উল-মুলুক সিরাজউদ্দৌলা শাহকুলি খাঁ মির্জা মুহম্মদ হায়বতজঙ্গ বাহাদুর’।

প্রশ্ন ৪২। ‘রাইয়াৎ’ শব্দের অর্থ কী?
উত্তর : ‘রাইয়াৎ’ শব্দের অর্থ হলো প্রজা।

প্রশ্ন ৪৩। হলওয়েল কে?
উত্তর : হলওয়েল হলো ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির ঘুষখোর ডাক্তার।

প্রশ্ন ৪৪। নবাব সিরাজউদ্দৌলাকে প্রথম কী দ্বারা আঘাত করা হয়?
উত্তর : নবাব সিরাজউদ্দৌলাকে প্রথমে লাঠি দ্বারা আঘাত করা হয় ।

প্রশ্ন ৪৫। কে চিরকালই ইংরেজদের বন্ধু?
উত্তর : উমিচাঁদ চিরকালই ইংরেজদের বন্ধু।

প্রশ্ন ৪৬। নবাব সিরাজউদ্দৌলাকে বন্দি করে কোথায় রাখা হয়?
উত্তর : নবাব সিরাজউদ্দৌলাকে বন্দি করে জাফরগঞ্জের কয়েদখানায় রাখা হয়।

প্রশ্ন ৪৭। ‘কামিয়াবি’ শব্দের অর্থ কী?
উত্তর : ‘কামিয়াবি’ শব্দের অর্থ সফলতা।

প্রশ্ন ৪৮। নবাব সিরাজউদ্দৌলার নানার নাম কী?
উত্তর : নবাব সিরাজউদ্দৌলার নানার নাম আলিবর্দি খাঁ।

প্রশ্ন ৪৯। হলওয়েলের পুরো নাম কী?
উত্তর : হলওয়েলের পুরো নাম জন হলওয়েল।

প্রশ্ন ৫০। তামা, তুলসী, গঙ্গাজল ছুঁয়ে প্রথমে কে শপথ | করেছিলেন?
উত্তর : তামা, তুলসী, গঙ্গাজল ছুঁয়ে প্রথমে রাজবল্লভ শপথ করেছিলেন।

সিরাজউদ্দৌলা নাটকের জ্ঞানমূলক প্রশ্ন ও উত্তর (এইচএসসি বাংলা ১মপত্র)

প্রশ্ন ৫১। ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি প্রথমে কোথায় বাণিজ্য কুঠি স্থাপন করে?
উত্তর : ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি প্রথমে সুরাটে বাণিজ্য কুঠি স্থাপন করে।

প্রশ্ন ৫২। কে ক্ষুদ্র শক্তিধর?
উত্তর : রায়দুর্লভ ক্ষুদ্র শক্তিধর।

প্রশ্ন ৫৩। ‘সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকে ফরাসি সেনাপতির নাম কী?
উত্তর : ‘সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকে ফরাসি সেনাপতির নাম সাঁফ্রে।

প্রশ্ন ৫৪। সিকান্দার আবু জাফর কত সালে বাংলা একাডেমি পুরস্কার পান?
উত্তর : সিকান্দার আবু জাফর ১৯৬৬ সালে বাংলা একাডেমি পুরস্কার পান।

প্রশ্ন ৫৫। সিরাজ কলকাতা শহরের নতুন নাম দিয়েছিলেন কী?
উত্তর : সিরাজউদ্দৌলা কলকাতা শহরের নতুন নাম দেন আলিনগর।

বিশ্লেষিত প্রশ্ন উত্তর

প্রশ্ন ৫৬। ‘সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকটি কোন যুদ্ধের পটভূমিতে রচিত?
উত্তর : ‘সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকটি পলাশির যুদ্ধের পটভূমিতে রচিত।

প্রশ্ন ৫৭৷ ‘গোলন্দাজ’ কাকে বলে?
উত্তর : কামান দাগিয়ে গোলা নিক্ষেপকারী সৈনিককে গোলন্দাজ বলে।

প্রশ্ন ৫৮। ‘সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকের প্রথম অঙ্কে কত সালের কাহিনি বর্ণিত হয়েছে?
উত্তর : ‘সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকের প্রথম অঙ্কে ১৭৫৬ সালের ১৯ জুনের কাহিনি বর্ণিত হয়েছে।

প্রশ্ন ৫৯। ‘সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকে মোট কতটি নারী চরিত্র আছে?
উত্তর : ‘সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকে মোট ৪টি নারী চরিত্র আছে।

প্রশ্ন ৬০। ‘সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকের প্রথম অঙ্কে নবাব কোন দুর্গে আক্রমণ চালান?
উত্তর : ‘সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকের প্রথম অঙ্কে নবাব ফোর্ট উইলিয়াম দুর্গে আক্রমণ চালান।

সিরাজউদ্দৌলা নাটকের জ্ঞানমূলক প্রশ্ন ও উত্তর (এইচএসসি বাংলা ১মপত্র)

প্রশ্ন ৬১। হল্যান্ডের অধিবাসীদের কী বলা হয়?
উত্তর : হল্যান্ডের অধিবাসীদের ‘ডাচ’ বলা হয়।

প্রশ্ন ৬২। ফোর্ট উইলিয়াম দুর্গের যুদ্ধে ইংরেজদের ক্যাপ্টেন কে ছিলেন?
উত্তর : ফোর্ট উইলিয়াম দুর্গের যুদ্ধের ইংরেজি ক্যাপ্টেন ছিলেন ক্লেটন।

প্রশ্ন ৬৩। ক্যাপ্টেন ক্লেটনের কাছে যুদ্ধ বন্ধের অনুমতি চেয়েছিলেন কে?
উত্তর : ক্যাপ্টেন ওয়ালি খান।

প্রশ্ন ৬৪। ‘তশরিফ’ শব্দের অর্থ কী?
উত্তর : ‘তশরিফ’ শব্দের অর্থ হলো উপস্থিত।

প্রশ্ন ৬৫। যুদ্ধের ভয়ে দুর্গ ছেড়ে পালিয়ে গিয়েছিলেন কে?
উত্তর : যুদ্ধের ভয়ে দুর্গ ছেড়ে পালিয়েছিল ক্যাপ্টেন মিনচিন, ফাকল্যান্ড এবং ম্যানিংহাম।

প্রশ্ন ৬৬। অন্ধকূপ হত্যার কাহিনি প্রচার করেছিলেন কে?
উত্তর : অন্ধকূপ হত্যার কাহিনি প্রচার করেছিলেন হলওয়েল।

প্রশ্ন ৬৭। হলওয়েল কাদের কাছে সাহায্য প্রার্থনা করেছিলেন?
উত্তর : হলওয়েল ফরাসি ও ডাচদের কাছে সাহায্য প্রার্থনা করেছিলেন।

প্রশ্ন ৬৮। ‘সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকে কারা নৌকায় করে পালিয়ে যায়?
উত্তর : ক্যাপ্টেন ক্লেটন ও গভর্নর রজার ড্রেক নৌকায় করে পালিয়ে যায়।

প্রশ্ন ৬৯। “ব্রিটিশ সিংহ ভয়ে লেজ গুটিয়ে নিলেন, এ বড় লজ্জার কথা।”- উক্তিটি কার?
উত্তর : “ব্রিটিশসিংহ ভয়ে লেজ গুটিয়ে নিলেন, এ বড় লজ্জার কথা”- উক্তিটি উমিচাঁদের।

প্রশ্ন ৭০। রাজা মানিকচাঁদের কাছে চিঠি পাঠাতে চেয়েছিলেন কে?
উত্তর : রাজা মানিকচাঁদের কাছে চিঠি পাঠাতে চেয়েছিলেন উমিচাঁদ।

প্রশ্ন ৭১। সাদা নিশান কিসের প্রতীক?
উত্তর : সাদা নিশান যুদ্ধ বন্ধের বা শান্তির প্রতীক।

প্রশ্ন ৭২। “সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকে সাদা নিশান ওড়ানোর আদেশ দিয়েছিলেন কে?
উত্তর : ‘সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকে সাদা নিশান ওড়ানোর আদেশ দিয়েছিলেন হলওয়েল ।

সিরাজউদ্দৌলা নাটকের জ্ঞানমূলক প্রশ্ন ও উত্তর (এইচএসসি বাংলা ১মপত্র)

প্রশ্ন ৭৩। ইংরেজরা কোন কুঠিতে অস্ত্র আমদানি করেছিল?
উত্তর : ইংরেজরা কাশিমবাজার কুঠিতে অস্ত্র আমদানি করেছিল ।

প্রশ্ন ৭৪। ইংরেজদের এদেশে আসার প্রাথমিক উদ্দেশ্য কী ছিল?
উত্তর : ইংরেজদের এদেশে আসার প্রাথমিক উদ্দেশ্য ছিল বাণিজ্য করা।

প্রশ্ন ৭৫। নবাব কামানের গোলায় কী উড়িয়ে দিতে বলেন?
উত্তর : নবাব কামানের গোলায় ইংরেজ গভর্নর ড্রেকের বাড়ি উড়িয়ে দিতে বলেন।

প্রশ্ন ৭৬। ড্রেক কে ছিলেন?
উত্তর : ড্রেক ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির গভর্নর ছিলেন।

প্রশ্ন ৭৭। মিরজাফরের প্রকৃত নাম কী?
উত্তর : মিরজাফরের প্রকৃত নাম মিরজাফর আলি খান।

প্রশ্ন ৭৮। Scoundrel শব্দের অর্থ কী?
উত্তর : Scoundrel শব্দের অর্থ নীচমনা।

প্রশ্ন ৭৯। ‘জগৎশেঠ’ কার উপাধি?
উত্তর : ‘জগৎশেঠ’ ফতেহ চাঁদের উপাধি।

প্রশ্ন ৮০। ওয়াটসের মতে কে নবাব হলে সবার উদ্দেশ্য হাসিল হবে?
উত্তর : ওয়াটসের মতে শওকতজঙ্গ নবাব হলে সবার উদ্দেশ্য হাসিল হবে।

প্রশ্ন ৮১। ‘কালোয়াতি’ শব্দের অর্থ কী?
উত্তর : ‘কালোয়াতি’ শব্দের অর্থ উচ্চাঙ্গ সংগীতে নৈপুণ্য।

প্রশ্ন ৮২। ‘সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকে অর্থলোলুপ, বিশ্বাসঘাতক কে?
উত্তর : ‘সিরাজউদ্দৌলা’ নাটকে অর্থলোলুপ, বিশ্বাসঘাতক রাজবল্লভ।

প্রশ্ন ৮৩। কার কাছে দওলত ভগবানের দাদামশায়ের চেয়ে বড়?
উত্তর : উমিচাঁদের কাছে দওলত ভগবানের দাদামশায়ের চেয়ে বড়।

প্রশ্ন ৮৪। মির্জা মুহম্মদ আলির মেজ মেয়ের নাম কী?
উত্তর : শাহ বেগম।

প্রশ্ন ৮৫। নবাব কোন জলসা চিরকালের মতো ভেঙে দিয়েছিলেন?
উত্তর : নবাব মতিঝিলের জলসা চিরকালের মতো ভেঙে দিয়েছিলেন।

প্রশ্ন ৮৬। সিরাজউদ্দৌলা ঘসেটি বেগমকে কোথায় নিয়ে রেখেছিলেন?
উত্তর : সিরাজউদ্দৌলা ঘসেটি বেগমকে রাজপ্রাসাদে নিয়ে রেখেছিলেন।

প্রশ্ন ৮৭। ‘নকিব’ অর্থ কী?
উত্তর : ‘নকিব’ অর্থ তূর্যবাদক।

প্রশ্ন ৮৮। উৎপীড়িত ব্যক্তির ঘরবাড়ি জ্বালিয়ে দিয়েছিল কারা?
উত্তর : উৎপীড়িত ব্যক্তির ঘরবাড়ি জ্বালিয়ে দিয়েছিল ইংরেজরা।

প্রশ্ন ৮৯। প্রজাকল্যাণ দেশের শান্তির জন্য নবাব কাদের সাহায্য চেয়েছিলেন?
উত্তর : প্রজাকল্যাণ ও দেশের শান্তির জন্য নবাব সিপাহসালার এবং সভাসদদের সাহায্য চেয়েছিলেন।

সিরাজউদ্দৌলা নাটকের জ্ঞানমূলক প্রশ্ন ও উত্তর (এইচএসসি বাংলা ১মপত্র)

প্রশ্ন ৯০। ওয়াটস ও ক্লাইভ কোন সন্ধি খেলাপ করেছিল?
উত্তর : ওয়াটস ও ক্লাইভ আলিনগরের সন্ধি খেলাপ করেছিল।

প্রশ্ন ৯১। কোম্পানির প্রতিনিধি হিসেবে নবাব কাকে দরবারে, আশ্রয় দিয়েছিলেন?
উত্তর : কোম্পানির প্রতিনিধি হিসেবে নবাব ওয়াটসকে দরবারে আশ্রয় দিয়েছিলেন।

৯২। জালিমের বিরুদ্ধে নবাবের প্রতিক্রিয়া কেমন ছিল?
উত্তর : জালিমের বিরুদ্ধে নবাবের প্রতিক্রিয়া কঠিন থেকে কঠিনতর ছিল।

প্রশ্ন ৯৩৷ ‘দেউড়ি’ শব্দের অর্থ কী?
উত্তর : ‘দেউড়ি’ শব্দের অর্থ সদর দরজা

প্রশ্ন ৯৪। মিরজাফরের সামনে তলোয়ার উন্মোচন করেছিলেন কে?
উত্তর : মিরজাফরের সামনে তলোয়ার উন্মোচন করেছিলেন মোহনলাল।

প্রশ্ন ৯৫। বেনিয়ার জাত বলা হয় কাদের?
উত্তর : ব্যবসায় করা যাদের জাতিগত পরিচয় তাদের।

প্রশ্ন ৯৬। মানিকচাঁদকে মুক্তির জন্য কত টাকা খেসারত দিতে হয়েছিল?
উত্তর : মানিকচাঁদকে মুক্তির জন্য সাড়ে দশ লক্ষ টাকা খেসারত দিতে হয়েছিল ।

প্রশ্ন ৯৭। জগৎশেঠের মতে কার মুখে কথার খই ফুটেছে?
উত্তর : জগৎশেঠের মতে রাইসুল জুহালার মুখে কথার খই ফুটেছে।

প্রশ্ন ৯৮। মিরজাফর সিরাজউদ্দৌলাকে ক্ষমতাচ্যুত করতে কাদের সাহায্য কামনা করেন?
উত্তর : মিরজাফর সিরাজউদ্দৌলাকে ক্ষমতাচ্যুত করতে ইংরেজদের সাহায্য কামনা করেন।

প্রশ্ন ৯৯। মিরজাফরের মনোবাসনা কী ছিল?
উত্তর : মিরজাফরের মনোবাসনা ছিল বাংলার মসনদে বসা।

প্রশ্ন ১০০। মিরন কে?
উত্তর : মিরজাফরের জ্যেষ্ঠ পুত্র।

প্রশ্ন ১০১। রবার্ট ক্লাইভ কত বছর বয়সে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানিতে চাকরি পান?
উত্তর : রবার্ট ক্লাইভ ১৭ বছর বয়সে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানিতে চাকরি পান।

প্রশ্ন ১০২। ওয়াটস ও ক্লাইভ কীভাবে মিরজাফরের গোপন সভায় যোগ দিয়েছিলেন?
উত্তর : মহিলাদের ছদ্মবেশ ধারণ করে

প্রশ্ন ১০৩। কার মতে নবাব ক্ষমতাহীন?
উত্তর : রবার্ট ক্লাইভের মতে নবাব ক্ষমতাহীন।

প্রশ্ন ১০৪। বাংলাকে বিক্রি করে দেওয়ার সন্দেহ জেগেছিল কার মনে?
উত্তর : বাংলাকে বিক্রি করার সন্দেহ জেগেছিল মিরজাফরের মনে।

প্রশ্ন ১০৫। মিরনের প্রাসাদের গোপন সভায় কে প্রবেশ করেছিল?
উত্তর : মিরনের গোপন সভায় মোহনলাল প্রবেশ করেছিলেন।

সিরাজউদ্দৌলা নাটকের জ্ঞানমূলক প্রশ্ন ও উত্তর (এইচএসসি বাংলা ১মপত্র)

প্রশ্ন ১০৬। আমিনা বেগম ঘসেটি বেগমের মধ্যে কোন সম্পর্ক বিদ্যমান?
উত্তর : আমিনা বেগম ও ঘসেটি বেগমের মধ্যে বোনের সম্পর্ক বিদ্যমান ।

প্রশ্ন ১০৭। ঘসেটি বেগম কোন প্রাসাদে বাস করতেন?
উত্তর : ঘসেটি বেগম ‘মতিঝিল’ প্রাসাদে বাস করতেন।

প্রশ্ন ১০৮। নবাব কাকে দুর্নামের হাত থেকে রক্ষা করতে চেয়েছিলেন?
উত্তর : নবাব ঘসেটি বেগমকে দুর্নামের হাত থেকে রক্ষা করতে চেয়েছিলেন ।

প্রশ্ন ১০৯। সিরাজউদ্দৌলা ক্ষমতাচ্যুত হলে কে সবচেয়ে বেশি খুশি হবেন?
উত্তর : সিরাজউদ্দৌলার খালা ঘসেটি বেগম।

প্রশ্ন ১১০। সিরাজউদ্দৌলা তাঁর স্ত্রীর মাঝে কিসের দেয়াল?
উত্তর : সিরাজউদ্দৌলা ও তাঁর স্ত্রীর মাঝে রাজত্বের দেয়াল।

প্রশ্ন ১১১। মোহনলাল কে?
উত্তর : সিরাজউদ্দৌলার অন্যতম বিশ্বস্ত সেনাপতি

প্রশ্ন ১১২। রবার্ট ক্লাইভ কে?
উত্তর : রবার্ট ক্লাইভ হলেন ইংরেজ সেনাধ্যক্ষ।

প্রশ্ন ১১৩। ইয়ার লুৎফ খাঁ কে?
উত্তর : পলাশির যুদ্ধের মিরজাফরের সহযোগী সেনাপতি।

প্রশ্ন ১১৪। পলাশির যুদ্ধে সিরাজউদ্দৌলার সবচেয়ে বেশি বিশ্বাস ছিল কার ওপর?
উত্তর : সবচেয়ে বেশি বিশ্বাস ছিল মোহনলালের ওপর।

প্রশ্ন ১১৫। শুধু তলোয়ার নিয়ে ইংরেজদের সামনে এগিয়ে গিয়েছিলেন কে?
উত্তর : মিরমর্দান

প্রশ্ন ১১৬। মিরমদান কীভাবে মারা যান?
উত্তর : পলাশির প্রান্তরে যুদ্ধ করতে গিয়ে শত্রুর গোলার আঘাতে মিরমর্দান মারা যান।

প্রশ্ন ১১৭। পলাশির যুদ্ধ শেষে নবাব কোথায় ফিরে গিয়েছিলেন?
উত্তর : পলাশির যুদ্ধ শেষে নবাব রাজধানীতে ফিরে গিয়েছিলেন।

প্রশ্ন ১১৮। নবাব সিরাজউদ্দৌলার শেষ সঙ্গী কে ছিলেন?
উত্তর : সিরাজউদ্দৌলার শেষ সঙ্গী ছিলেন তাঁর স্ত্রী লুৎফুন্নেসা।

প্রশ্ন ১১৯। সিরাজউদ্দৌলার পর বাংলার মসনদে আরোহণ করেছিলেন কে?
উত্তর : মিরজাফর আলি খান।

সিরাজউদ্দৌলা নাটকের জ্ঞানমূলক প্রশ্ন ও উত্তর (এইচএসসি বাংলা ১মপত্র)

প্রশ্ন ১২০। মিরজাফর কার হাত ধরে বাংলার মসনদে বসেছিলেন?
উত্তর : মিরজাফর কর্নেল ক্লাইভের হাত ধরে মসনদে বসেছিলেন।

প্রশ্ন ১২১। কে নিজেকে খুন করার জন্য আহ্বান করেছিলেন?
উত্তর : উমিচাঁদ নিজেকে খুন করার জন্য আহ্বান করেছিলেন।

প্রশ্ন ১২২। মিরজাফর আলি খান ক্লাইভকে বার্ষিক কত টাকা ইনাম দেওয়ার ঘোষণা করে?
উত্তর : মিরজাফর ক্লাইভকে বার্ষিক চার লক্ষ টাকা ইনাম দেওয়ার ঘোষণা করে।

প্রশ্ন ১২৩। মিরজাফর আলি খান ক্লাইভকে কোন রাজ্যের মালিকানা দেয়?
উত্তর : ২৪ পরগনা রাজ্যের মালিকানা।

প্রশ্ন ১২৪। মিরজাফর আলি খান কার ইচ্ছানুযায়ী রাজ্য চালাত?
উত্তর : মিরজাফর আলি খান ক্লাইভের ইচ্ছানুযায়ী রাজ্য চালাত।

প্রশ্ন ১২৫। সিরাজউদ্দৌলা সর্বশেষ দোয়া প্রার্থনা কাদের জন্য করেছিলেন?
উত্তর : সিরাজউদ্দৌলা সর্বশেষ দোয়া প্রার্থনা বাংলার প্রত্যেক মানুষের জন্য করেছিলেন।

এই সিরাজউদ্দৌলা নাটকের জ্ঞানমূলক প্রশ্ন ও উত্তর (এইচএসসি বাংলা ১মপত্র)ছাড়াও আরো পড়ুন